কাশ্মীরি জনগণের পাশে থাকার ঘোষণা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর

অনলাইন ডেস্ক 05-September-2019 Technology

স্বাধীনতার লড়াইয়ে কাশ্মীরি জনগণের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এ জন্য যত দূর প্রয়োজন তত দূরে পর্যন্ত যাওয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন পাকিস্তানের সেনা মুখপাত্র।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ দফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিফ গফুর কাশ্মীরিদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন। খবর ডন ও জিও নিউজের।

তিনি বলেন, কাশ্মীরিদের জানিয়ে দিতে চাই আমরা আপনাদের পাশে আছি। যেকোনও পরিস্থিতিতে আমরা আপনাদের সঙ্গেই থাকব। ৭২ বছর যাবৎ আপনারা স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম করছেন, কিন্তু দুঃখজনকভাবে কাশ্মীরের স্বাধীনতা সংগ্রামকে সন্ত্রাসবাদ হিসেবে উপস্থাপন করা হচ্ছে।

কাশ্মীরি জনগণের অবিচল দৃঢ়তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর এ মুখপাত্র আরও বলেন, আপনাদের দুর্দশা ও মারাত্মক পরিস্থিতির কষ্ট আমরাও অনুভব করি। আমরা আপনাদের পাশে ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকব।

কাশ্মীর নিয়ে ভারত যুদ্ধের বীজবপন করছে বলেও অভিযোগ করেন মেজর জেনারেল আসিফ গফুর।

তিনি বলেন, নয়াদিল্লি গত মাসে কাশ্মীরের শায়ত্তশাসন বাতিল করার পরে বিরোধীপূর্ণ কাশ্মীরে ভারতের ভূমিকা আঞ্চলিক শান্তি বিপন্ন করছে।

গত ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই ‘চিরবৈরী প্রতিবেশী’ পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক আরও খারাপ হচ্ছে ভারতের। ইসলামাবাদ এরই মধ্যে সাফ জানিয়ে দিয়েছে,তারা কাশ্মীরিদের জন্য তাদের সর্বস্ব দিয়ে লড়াই করবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর থেকেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে আছে কাশ্মীর ইস্যু। দুই দেশই অঞ্চলটির অংশ বিশেষ শাসন করলেও পুরো অংশ নিজেদের বলে দাবি করে। এখন পর্যন্ত দুই দেশের মধ্যে সংগঠিত তিনটি যুদ্ধের মধ্যে দুটি সংগঠিত হয়েছে কাশ্মীর ইস্যুতে।

Terms and conditions?