শিল্পাঞ্চলে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ সংরক্ষণে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক 01-September-2019 Technology

শিল্পাঞ্চলে শিল্প উন্নয়নের পাশাপাশি বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়গুলোর দিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি রাখতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

রবিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২০১৬-২০১৭ অর্থ-বছরে রফতানি বাণিজ্যে অবদানের জন্য সেরা রফতানিকারকের মাঝে ট্রফি প্রদান অনুষ্ঠানে এই আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) যৌথ উদ্যোগে এই ট্রফি প্রদান করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি একটি অনুরোধ করব, আপনাদের ব্যবসায়ীদের সবাইকে। শিল্পাঞ্চল আপনারা গড়ে তুলবেন, শিল্প উন্নয়ন করবেন। সঙ্গে সঙ্গে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, পরিবেশ সংরক্ষণ এ বিষয়টির দিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি দিতে হবে। বর্জ্য ব্যবস্থাপনাটা শুরু থেকেই করতে হবে।' 

ব্যবসায়ীদের প্রতিটি শিল্পাঞ্চল এলাকায় জলাধার রাখার অনুরোধ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি জায়গায় একটা জলাধার রাখা দরকার। সেই জলাধারগুলো যেমন বৃষ্টির পানি যাতে সেখানে সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা যায়। বৃষ্টির পানি যেন এই জলাধারে সঞ্চিত হয়, যাতে আগুন লাগলে বা দুর্ঘটনা ঘটলে সেই পানিটা ব্যবহার করা যায়। আর একটা জলাধার থাকলে সেখানকার পরিবেশটাও ভালো থাকে। পাশাপাশি ব্যাপকভাবে বৃক্ষরোপণ করা দরকার। এটি আমাদের পরিবেশের জন্য একান্তভাবে দরকার। আমার এই অনুরোধটা আমি আপনাদের কাছ থেকে রেখে গেলাম।

এর আগে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ট্রফিপ্রাপ্তদের হাতে ট্রফি তুলে দেন   প্রধানমন্ত্রী। দেশের রপ্তানি বাণিজ্য উৎসাহিত করার পাশাপাশি সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবছর ব্যবসায়ীদের রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হয়। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রপ্তানি বাণিজ্যে অবদানের জন্য এবার সেরা ৬৬ রপ্তানিকারককে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ট্রফি তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। জাতীয় রপ্তানি ট্রফি নীতিমালা অনুযায়ী মোট ২৮টি ক্যাটাগরিতে পদক দেওয়া হয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ, মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান বেগম ফাতিমা ইয়াসমিন।

Terms and conditions?